অনিয়মিত ঋতুস্রাব ও ঋতুবদ্ধতায় কার্যকরী ইউনানী ঔষধ।

18th Aug 2018

কোন কোন মহিলাদের উপযুক্ত বয়স হলেও ঋতুস্রাব হয় না, কিংবা হলেও অত্যন্ত সামান্য মাত্রায় হয় এবং ব্যাথা-বেদনা হয়। আমরা কি এই সকল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারি না? জেনে নেই কিভাবে অতি সহজেই অনিয়মিত ঋতুস্রাব, ঋতুবদ্ধতা, ঋতুস্রাবে কষ্ট, ঋতুকালে ব্যাথা, জরায়ু-প্রদাহ, জরায়ুর দূর্বলতা ইত্যাদি রোগ থেকে মুক্তি পেতে পারি। উলট কম্বলঃ যেসব নারীদের অনিয়মিত ঋতুস্রাব হয় অথবা নির্দিষ্ট পরিমাণের চেয়ে কম পরিমাণ হয়ে থাকে, তাদের ক্ষেত্রে উলট কম্বল একটি পরীক্ষিত ঔষধ। এর মূলের ছাল থেকে এক ধরনের আঠা জাতীয় রস বের হয়, যা গর্ভাশয়ের শক্তি বৃদ্ধি করে। বিশেষ করে বন্ধ্যা রোগীদের ক্ষেত্রে উলট কম্বলের মূলের ছাল ভীষণ উপকারী। তোখমে গাজরঃ নিয়মিত ভিটামিন-এ খাচ্ছেন? ভুলে যান বাইরের ভিটামিনের কথা। খেয়ে নিন একটি কমলা রঙের গাজর কারণ একটি গাজর দিতে পারে ভিটামিন-এ ছাড়াও নানা উপকার। তাই একে বলা হয়ে থাকে শক্তিশালী খাদ্য উপাদান। শুধু ভিটামিন-এ ই পাওয়া যায় তা নয়, গাজরের আছে নানাবিধ উপকার, এটি আপনাকে উপহার দিবে সুন্দর ত্বক, ক্যান্সার থেকে সুরক্ষা। পুদিনা খুশ্কঃ পুদিনা পাতার গুণ অপরিসীম। বহু বিজ্ঞানীদের দাবি, পুদিনা পাতা ক্যান্সার প্রতিরোধের ক্ষমতা রাখে। পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফাইটো-নিউট্রিয়েন্টস, যা পেটের যে কোন সমস্যার সমাধান করতে পারে খুব দ্রুত। আমরা এখন খুব সহজেই জানতে পারলাম যে উপরে উল্লেখিত উপাদানগুলো রয়েছে আমাদের হাতের কাছেই। এই উপাদানগুলো সংগ্রহ করে একসাথে সেবন করুন আর যদি এগুলো সংগ্রহ করা আপনারা ঝামেলা মনে করেন, তবে আজই আপনার পাশের ফার্মেসী থেকে সংগ্রহ করুন জেবিএল ড্রাগ ল্যাবরেটরীজ এর ‘‘মেনসুলেক্স’’। উপরের উল্লেখিত উপাদানগুলোর সুষম সমন্বয়ে ইউনানী ফর্মুলা অনুসরণে তৈরী ‘‘মেনসুলেক্স’’ দিতে পারে অনিয়মিত ঋতুস্রাব, ঋতুবদ্ধতা, ঋতুস্রাবে কষ্ট, ঋতুকালে ব্যাথা, জরায়ু-প্রদাহ, জরায়ুর দূর্বলতা ইত্যাদি রোগ থেকে মুক্তি। সুতরাং ‘‘মেনসুলেক্স’’ সেবন করুন, অনিয়মিত ঋতুস্রাব, ঋতুবদ্ধতা, ঋতুস্রাবে কষ্ট, ঋতুকালে ব্যাথা, জরায়ু-প্রদাহ, জরায়ুর দূর্বলতা থেকে মুক্ত থাকুন। উপাদানঃ প্রতি ৫ মিলিতে জলীয় নির্যাস আকারে আছে- বাওবিরঙ্গ (Embelia ribes)……………০.১২৫ মি.গ্রা.। মজেঠ (Rubiacordifolia)…………….…..০.১২৫ মি.গ্রা.। উলট কম্বল (Abroma augusta)………..…০.১২৫ মি.গ্রা.। বাদিয়ান (Foeniculum vulgare)…………..০.১২৫ মি.গ্রা.। তোখমে খরবূযা (Cucumis melo)………….০.১২৫ মি.গ্রা.। পোস্ত আমলতাস (Cassia fistula)…………০.১২৫ মি.গ্রা.। তোখমে কুরতুম (Cartamus tinctorius).……০.১২৫ মি.গ্রা.। পুদিনা খুশ্ক (Mentha piperita)……………০.১২৫ মি.গ্রা.। তোখমে গাজর (Daucus carota)……………০.০৭৫ মি.গ্রা.। অন্যান্য উপাদান পরিমাণ মত। নির্দেশনাঃ অনিয়মিত ঋতুস্রাব, ঋতুবদ্ধতা, ঋতুস্রাবে কষ্ট, ঋতুকালে ব্যাথা, জরায়ু-প্রদাহ, জরায়ুর দূর্বলতা ইত্যাদি রোগ থেকে মুক্তি দেয়। সেবনবিধিঃ ৩-৪ চা চামচ করে দৈনিক ২ বার অথবা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেব্য। পরিবেশনাঃ ১০০ মিলি, ২০০ মিলি এবং ৪৫০ মিলি পেট বোতলে। প্রস্তুতকারকঃ জেবিএল ড্রাগ ল্যাবরেটরীজ (ইউনানী) গাজীপুর, বাংলাদেশ।